চকরিয়ার কোনাখালীতে পুলিশকে মাদক ব্যবসায়ীদের তথ্য দেয়ায় চৌকিদার ও তার সন্তানদের উপর সন্ত্রাসী হামলা

received_2749371905307450

চকরিয়া প্রতিনিধি:
চকরিয়ায় চলমান মাদক বিরোধী অভিযানে থানা ও ফাঁড়ি পুলিশকে মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে তথ্য দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে মাদক ব্যবসায়ী- চিহ্নিত সন্ত্রাসী, তাদের সহযোগি ও আত্বীয়স্বজনরা মিলে চৌকিদার ও তার সন্তানদের উপর পৃথক ৩টি হামলার ঘটনা ঘটেছে। হামলায় আহত হয়েছে ৫জন। তাদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তন্মধ্যে দু’জনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। উপজেলার কোনাখালী ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের বাংলাবাজার খাসপাড়া এলাকায় গত ২২ জুূলাই রাত ৯টার দিকে ঘটেছে এ ঘটনা।
এনিয়ে ভূক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় পৃথক ৩টি লিখিত এজাহার দায়ের করা হয়েছে। বাদীরা হলেন; পশ্চিম কোনাখালী খাসপাড়া গ্রামের মৃত মোক্তার আহমদের পুত্র বর্তমান গ্রাম পুলিশ মিজানুর রহমান চৌকিদার (৪৮), তার স্ত্রী নুর নাহার বেগম (৪০)ও অপরটির বাদী সাহারবিল ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের পূর্বপাড়া গ্রামের নাছির উদ্দিনের পুত্র মো: ওসমান গনি (২০)। পৃথক ৩টি এজাহারে অভিযুক্ত করা হয়েছে; কোনাখালী ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের বাংলাবাজার খাসপাড়া এলাকার হারুন রশিদের পুত্র মো: আমজাদ, মো: ইসমাইলের পুত্র মো: নয়ন, কোনাখালী ইউসুপের বাপেরপাড়া গ্রামের নাছির উদ্দিনের পুত্র মো: আবছার, ইয়াছিন আলীর পুত্র মো: সুমন, খাসপাড়া গ্রামের মৃত আবদুল জব্বারের পুত্র ইয়াছিন আলী, মৃত আবদুল জব্বারের পুত্র হারুনু রশিদ, মো:ইসমাইলের পুত্র মো: শাকিলসহ অজ্ঞাত আরো কয়েকজনকে।
গ্রাম পুলিশ মিজানুর রহমান চৌকিদারের অভিযোগে জানাগেছে, থানা পুলিশের নির্দেশে এলাকায় মাদক ব্যবসা,চুরি, ছিনতাইসহ বিভিন্ন অভিযোগে অভিযুক্তদের তালিকা তৈরী করে বাড়ি ফেরার পথে গত ১৮ জুলাই দিবাগত রাত সাড়ে ৮টায় অভিযুক্তরা ধারালো অস্ত্র শস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। হামলাকালে বেধম মারধরসহ মোবাইল সেট লুট করে। চিকিৎসা শেষে ৪দিন পর ২২জুলাই বাড়ি ফিরলে পরিবারের সদস্যদের উপর ফের হামলা চালানো হয়েছে।
গ্রাম পুলিশ মিজানুর রহমান চৌকিদারের স্ত্রী নুর নাহার বেগমের অভিযোগে জানাগেছে, মাদকের বিরুদ্ধে চৌকিদার স্বামী সোচ্ছার হওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে ২২জুলাই রাত ৯টার দিকে ২য় দফায় বাড়ির চলাচল পথে হামলা চালায়। হামলায় আহত হয়েছে; নুর নাহার বেগম (৪০), তার স্বামী গ্রাম পুলিশ মিজানুর রহমান চৌকিদার (৪৮), তার ছেলে মো: সাজ্জাদ (২৩), ছেলে ফাহিমুল ইসলাম (১৮)সহ ৫জন। হামলাকালে মোবাইল সেট ও নগদ টাকা লুট করে।
অপরদিকে নাছির উদ্দিনের পুত্র মো: ওসমান গনির অভিযোগে জানাগেছে, গত ২২জুলাই সন্ধ্যায় চকরিয়ার চিরিংগা ওয়াপদা রোড থেকে সিএনজি গাড়ী চালিয়ে কোনাখালী বাংলাবাজার যাওয়ার পথে ঢেমুশিয়া ইউপির ৪নং ওয়ার্ডের সাহাবখালী পাড়ায় পৌঁছলে অভিযুক্তরা অস্ত্র শস্ত্র নিয়ে সন্ত্রাসী কায়দায় অতর্কিত হামলা চালায়। হামলাকালে তিনি (ওসমান গনি) সহ ২জন আহত হন। হামলাকালে তিনটি মোবাইল সেট ও নগদ ৬হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায়।
চকরিয়া থানার ওসি মো:হাবিবুর রহমান জানান, পৃথক ৩টি ঘটনার বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেয়েছেন। অভিযোগ সমূহ তদন্ত করতে মাতামুহুরী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সত্যতা পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।। ##

বিভাগের সংবাদ।

নিউজ ডেস্ক, চকরিয়া২৪।