চকরিয়ার সুরাজপুরে পূর্বশত্রুতার জের, প্রবাসীকে পিটিয়ে জখম

FB_IMG_1595979882412

চকরিয়া প্রতিনিধি
চকরিয়ায় পূর্বশত্রুতার জের ধরে ফজরের নামাজ পড়ে বাড়ি ফেরার পথে এক প্রবাসীকে পিটিয়ে জখমের অভিযোগ উঠেছে। তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। উপজেলার সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ সুরাজপুর গ্রামে ২৮ জুলাই সকাল সাড়ে ৫টার দিকে ঘটেছে এ ঘটনা।
অভিযোগে জানাগেছে, দক্ষিণ সুরাজপুর গ্রামের মৃত সৈয়দ করিমের পুত্র আবু তাহের (৫২) জীবিকা নির্বাহের তাগিদে প্রবাসে (সৌদি আরব) থাকেন। শরীরে ক্যান্সার রোগের লক্ষণ দেখা দিলে সম্প্রতি দেশে ফিরেন। কিন্তু পূর্বশত্রুতার আক্রোশে প্রবাসী পরিবারকে নানাভাবে হুমকি ধমকি দিতে থাকেন একই এলাকার মৃত আবদুর রহমান পুত্র আলী হোসেন গং। প্রবাসে থাকাবস্থায়ও পরিবারের সদদ্যদের একইভাবে হুমকি প্রদান করেন। সর্বশেষ ২৮ জুলাই সকাল সাড়ে ৫টায় মসজিদে ফজরের নামাজ পড়ে বাড়ি ফেরার পথে পূর্বপরিকল্পিতভাবে আলী হোসেনের পুত্র মিজানুর রহমান ও মিনারুর রহমান, মৃত আবদুর রহমানের পুত্র আলী হোসেন পথরোধ করে অতর্কিত হামলা চালায়। গুরুতর আহত হয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পরে থাকলে পরিবারের সদস্যরা ও স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।
চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: হাবিবুর রহমান বলেন, ঘটনার বিষয়ে মৌখিকভাবে অবহিত হলেও কেউ লিখিতভাবে জানায়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
চকরিয়ার বদরখালীতে চাষাবাদের জমি জবর দখলে বাঁধা দেয়ার জের ধরে বিচারকের সামনে হামলা, আহত-১
চকরিয়া প্রতিনিধি
চকরিয়ার বদরখালী এলাকায় চাষাবাদের জমি জবরদখলের সময় বাঁধা দেয়ার জের ধরে সন্ত্রাসী হামলায় এক কৃষক আহত হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।জানাগেছে চকরিয়া উপজেলার উপকুলিয বদরখালী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড সাতডালিয়া পাড়ার আব্দু রহিম চিশ্তিীর পুত্র বদরখালী সমবায় ও কৃষি উপনিবেশ সমিতির পরিচালক, ইউনিয়ন কৃষকলীগের সহসভাপতি ও মৎস্যজীবীলীগের সভাপতি কৃষক মনজুর আলম তার পৈত্রিকপ্রাপ্ত ক্রয়কৃত ও ৩ ফুফুর জমি লাগিয়ত নিয়ে চাষাবাদ করে আসছে। দূর্লোভের বশবর্তী হয়ে একই এলাকার মৃত আব্দুল কাদেরের পুত্র মাষ্টার শফিকুল আলমের নির্দেশে তাহার পুত্র ছরওয়ার কামাল ও আহসান হাবিব সাগরের নেতৃত্বে ভাড়াটিয়া লাঠিয়াল বাহিনী নিয়ে কৃষক মনজুর আলমের চাষাবাদের জমি জবরদখল করার চেষ্টা করলে, মনজুরের চাচাত ভাই তারেক আরমান জবর দখলকারীদের বাঁধা প্রদান করেন। এ ঘটনায় গত ২৭ জুলাই বিরোধ মীমাংসার লক্ষে আবু তাহের, মনজুর আলমকে ডেকে নিলে একই প্রতিপক্ষগং ক্ষিপ্ত হয়ে বিচারক আবু তাহেরের সামনেই লোহার রড ও লাঠি দিয়ে পিঠিয়ে তাহাকে গুরুকর আহত করে।আহত মনজুর আলম চকরিয়া সরকারী চাসপাতালে চিকিৎসা ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নেন।এ ঘটনায় চকরিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করা হযেছে। আহত মনজুর আলম ও তার পরিবারের লোকজন প্রশাসনের প্রতি দাবী জানিয়েছেন অপরাধীদের গ্রেপ্তার করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করার জন্য।

বিভাগের সংবাদ।

নিউজ ডেস্ক, চকরিয়া২৪।