চকরিয়ায় ৯২বছরের বৃদ্ধ স্বামী-স্ত্রীকে মারধর

PicsArt_09-04-08.58.41
চকরিয়া প্রতিনিধি:
চকরিয়ায় জমি জবর জবর দখলে নিতে ৯২বছর বয়সী বৃদ্ধ ভিলেজার ও তার স্ত্রী ৮০বছর বয়সী বৃদ্ধাকে পিটিয়ে জখম করা হয়েছে। গত ৩সেপ্টেম্বর’২০ইং দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার ডুলাহাজারা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের রিংভং ছগিরশাহকাটা গ্রামে ঘটেছে এ ঘটনা।
অভিযোগে জানাগেছে, কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের ফাঁসিয়াখালী রেঞ্জ ও ফাঁসিয়াখালী বনবিটের আওতাধীন রিংভং মৌজার ২৩নং ভিলেজার বনজায়গীরদার হিসেবে বিগত ১৯৫৫সাল হতে দায়িত্ব পালন করে আসছেন ওই এলাকার মরহুম আকাম উদ্দিনের পুত্র ৯২বছর বয়সী বয়োবৃদ্ধ আলহাজ্ব খলিলুর রহমান। দায়িত্বের সুবাদে বনবিভাগ হতে বরাদ্দকৃত জমিও শান্তিপূর্ণভাবে ভোগ দখলে রয়েছেন। অভিযোগ উঠেছে, বৃদ্ধ বনজায়গীরদার খলিলুর রহমানের ৩ ছেলে নিজ নিজ পেশাগত দায়িত্বে ব্যস্ত থাকার সুযোগে ভিলেজারের ভোগ দখলীয় জমির উপর লুলোপদৃষ্টি পড়ে  দখলবাজ কুচক্রি মহলের। তারই ধারাবাহিকতায় স্থানীয় দখলবাজ চক্রের মৃত আবদুল মালেকের পুত্র কাছেম আলী, আবুল খাইরের পুত্র ইদ্রিছ, মৃত মৌং রশিদ আহমদের পুত্র কুতুব উদ্দিন গং আরো ভাড়াটিয়া লোকজন নিয়ে গত ৩সেপ্টেম্বর’২০ইং দুপুর ১২টার বয়োবৃদ্ধ ভিলেজার খলিলুর রহমানের কিছু পরিমাণ চাষাবাদী জমি জবর দখলে নেয়ার চেষ্টা চালায়। বসতঘরের সামনে গিয়ে অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ করে এবং বাড়ির টিউবওয়েলের লম্বা পাইপ টুকরো টুকরো করে ছুড়ে ফেলে।
পুত্ররা বাড়িতে না থাকায় বয়োবৃদ্ধ ভিলেজার খলিলুর রহমান (৯২) ও তার স্ত্রী আমেনা খাতুন (৮০) বাধা দিতে গেলে দখলবাজ সন্ত্রাসীরা তাদের বেধম মারধর করে ও চাষাবাদী জমিতে টানা হেচড়া করে শ্লীলতাহানী করে। এক পর্যায়ে বয়োবৃদ্ধ স্বামী-স্ত্রী দুু’জনকে গলাটিপে হত্যার চেষ্টাও চালায় দখলবাজ সন্ত্রাসীরা। পরে চাষাবাদে কাজ করা লোকজন ও স্থানীয়রা এগিয়ে সন্ত্রাসীদের কবল থেকে তাদেরকে উদ্ধার করে বৃদ্ধের সন্তান মাস্টার আমিরুল আজিমসহ পরিবারের সদস্যদের খবর দিলে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। উল্লেখিত সন্ত্রাসী কাছিম আলীর বিরুদ্ধে জিআর নং ৩৪১/১৭ ও জিআর ৬৮৫/১৮ মামলাও বিচারাধীন রয়েছে। এনিয়ে ভুক্তভোগি পরিবার মামলার প্রস্তুতি নিয়েছেন বলে জানান। তারা সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কাছে আইনি সহায়তা কামনা করেছেন।
বিভাগের সংবাদ।

নিউজ ডেস্ক, চকরিয়া২৪।