প্রকাশিত সংবাদে ডুলাহাজারার খুচরা সার ডিলারদের প্রতিবাদ বিবৃতি

Protibad_1

কক্সবাজার জেলার বিভিন্ন অনলাইন, স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকায় গত ২ ও ৩ সেপ্টেম্বর “ডুলাহাজারা সার ডিলারদের অনিয়মে তিন হাজার কৃষকের ভোগান্তি” শিরোনামের একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। সংবাদে আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ এনে কৃষক ও সাধারণ মানুষকে বিভ্রান্ত করা হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে চকরিয়া উপজেলায় ডুলাহাজারা ও মালুমঘাট নামের দুটি বাজার রয়েছে। বাজার দুটি সব ওয়ার্ডের মাঝখানে হওয়ায় সমগ্র জনসাধারণ বাজারে এসে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র নিয়ে যাচ্ছে। পাশাপাশি কৃষকদের চাহিদা মতো সার, বীজ ও কীটনাশক নিয়ে যেতে কোন ধরনের সমস্যা হচ্ছে না। ভৌগলিক অবস্থান হিসেবে এ ইউনিয়নের ১, ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের কৃষক মালুমঘাট বাজার এবং ৪, ৫, ৬, ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ড এই ৬টি ওয়ার্ডের প্রান্তিক কৃষকরা ডুলাহাজারা বাজারে তাদের কৃষি পণ্যগুলো বিক্রি করতে আসে। পরে বাড়ি ফেরার সময় তাদের প্রয়োজনীয় সার, বীজ, কীটনাশক কিনে নিয়ে যেতে অত্যন্ত সহজ হচ্ছে। আমারা সরকারি নির্ধারিত মুল্যে সার বিক্রি করে আসছি। সেই আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর ২০০৯ সাল হতে আজ পর্যন্ত কোনদিন কোন কৃষক আমরা ডিলার গনের বিরুদ্ধে কোন সময় অভিযোগ দেয়নি। আমরাও কৃষকদের কোন ধরণের হয়রানী করা হয়নি। সংবাদে উল্লেখিত কৃষকরা সার নিয়ে যাওয়ার আসার সময় পুলিশ কর্তৃক টমটম গাড়ী আটকানোর বিষয়টি সঠিক নয়। এছাড়া প্রতি বস্তা সার নিয়ে যেতে ৩০০ টাকা করে খরচের যে কথা বলা হয়েছে, তা সঠিক নয়। কৃষকদেরকে প্রতি বস্তা সার বাজার থেকে নিয়ে যেতে খরচ হয় মাত্র ১০ টাকা করে। বর্তমান সরকার কৃষি বান্ধব সরকার। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা এক ইঞ্চি জমি যেন খালি পড়ে না থাকে আমরা কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করছি। সরেজমিনে তদন্ত করলে দেখা যাবে যে, আমরা কৃষকদের মাঝে গিয়ে প্রতিনিয়িতই সহযোগিতা করে আসতেছি। আমাদের মনে হয়, জনৈক একজন অসাদু ব্যক্তির কুটকৌশল হিসেবে, আমাদের প্রতি ব্যবসায়িক প্রতিহিংসা পরায়ন হয়ে এসব মিথ্যাচার করা হয়েছে। সেই ভদ্র ব্যবসায়ীরা গুটিকয়েক নামদারী কৃষকদের উদ্দেশ্য প্রণোদিত অপপ্রচার করে আসছে। এসব মহল আমরা খুচরা ডিলার গনের বিরুদ্ধে আজেবাজে মিথ্যা ভিত্তিহীন বানোয়াট তথ্য দিয়ে অনলাইন ও দৈনিক পত্রিকায় সংবাদ প্রচার করে আসছে। এছাড়াও ডুলাহাজারা ইউনিয়নে ৯নং ওয়ার্ডের জন্য ৯জন খুচরা সার ডিলার দেওয়ার নিয়ম থাকলেও বর্তমানে অত্র ইউনিয়নে ১২জন খুচরা সার ডিলার রয়েছে। উপজেলা কৃষি অফিসে আমাদের বিরুদ্ধে নালিশ দিয়ে, দরখাস্ত দিয়ে অহেতুক আমাদেরকে হয়রানি করা হয়। এ অবস্থা থেকে বাঁচতে আমরা চকরিয়া উপজেলা সার, বীজ, কীটনাশক মনিটরিং উপদেষ্টা জনাব আলহাজ্ব জাফর আলম (বিএ অনার্স এমএ) এমপি মহোদয় ও মনিটরিং কমিটির সভাপতি নির্বাহী কর্মকর্তা এবং সদস্য সচিব উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। তার সহযোগিতায় বিভিন্ন মিথ্যা অভিযোগে আনা ডুলাহাজারা খুচরা সার ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন সংবাদ নিয়ে কাউকে বিব্রত না হতে অনুরোধ করছি।
বিবৃতি প্রদানকারী- খুচরা সার ডিলারবৃন্দ
ডুলাহাজারা ইউনিয়ন
চকরিয়া, কক্সবাজার।

বিভাগের সংবাদ।

নিউজ ডেস্ক, চকরিয়া২৪।