চকরিয়ায় ৪র্থ শ্রেণির স্কুল ছাত্রী ধর্ষনের শিকার, থানায় মামলা গ্রহণ

IMG_20200909_224820
চকরিয়া প্রতিনিধি:
চকরিয়ায় ৪র্থ শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুল ছাত্রীকে বাড়িতে ঢুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এঘটনায় ধর্ষিতা ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছে। মামলার প্রেক্ষিতে ধর্ষিতা স্কুল ছাত্রী ৯ সেপ্টেম্বর (বুধবার) আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে। মামলা রুজুর পর থেকে অভিযুক্ত আসামী ধর্ষণকারী পলাতক রয়েছে। পুলিশ তাকে গ্রেফতারে একাধিক অভিযানও পরিচালনা করেছে। কিন্তু তার কোন সন্ধান পায়নি। উপজেলার বদরখালী ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের গুদামপাড়া এলাকায় ঘটেছে এ ঘটনা। ধর্ষিতা ছাত্রী (ছদ্মনাম টুম্পা) স্থানীয় এক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রী বলে জানাগেছে।
প্রাপ্ত তথ্যে ও মামলার আর্জি সূত্রে জানাযায়, বর্তমান করোনা ভাইরাসের কারণে দেশের সকল স্কুল বন্ধ রয়েছে। কিন্তু ওই বিদ্যালয়ে সীমিত পরিসরে প্রাইভেট পড়ান এক শিক্ষক। প্রতিদিনের ন্যায় ৪র্থ শ্রেণিতে পড়ুয়া ওই ছাত্রী (ছদ্মনাম টুম্পা) গত ৭ সেপ্টেম্বর বিকাল ৩টায় প্রাইভেট পড়তে যায়। প্রাইভেট শেষে বিকাল সাড়ে ৪টায় বাড়ি ফিরেন। কিন্তু বাড়িতে পিতা-মাতা না থাকার সুযোগে পূর্বে থেকে উত্যাক্ত করে আসা বখাটে বদরখালী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের মাতারবাড়ি পাড়া গ্রামের আবু তাহেরের পুত্র আবদুল গনি (২৫) স্কুল ছাত্রীর পিছু নিয়ে সাড়ে ৪টায় বাড়িতে ঢুকে অপ্রাপ্ত বয়স্ক স্কুল ছাত্রী শিশুকে মুখ চেপে ধরে জোরপূর্বক পরনের পায়জামা খোলে ইচ্ছের বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে। ওই সময় স্কুল ছাত্রী আত্মচিৎকার শুরু করলে স্থানীয় লোকজন ও প্রতিবেশিরা এগিয়ে গেলে ধর্ষণকারী বখাটে আবদুল গনি পালিয়ে যায়।
চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: হাবিবুর রহমান জানান, ধর্ষিত স্কুল ছাত্রীর পিতা ভিকটিম সহকারে থানায় হাজির হয়ে একজনের বিরুদ্ধে একটি এজাহার দায়ের করেন। এরপর পুলিশ পাহাড়ায় ধর্ষিতা স্কুল ছাত্রীকে জেলা সদর হাসপাতাল কক্সবাজারের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পরীক্ষা নিরীক্ষার (মেডিকেল টেস্ট) জন্য পাঠানো হয়। এরপরও ৮ সেপ্টেম্বর’২০ইং থানায় স্কুল ছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ৯(১) ২০০০, সংশোধন ২০০৩ ধারায় মামলা (নং ৫,জিআর ৩৬৮/২০) রুজু করেন। মামলাটি তদন্তের জন্য বদরখালী পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (এসআই) মো: জাকির হোসেনকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত ধর্ষণকারী আবদুল গনিকে গ্রেফতারে পুলিশ তার বাড়িসহ সন্ধেহজনক স্থানে একাধিকবার অভিযান চালিয়ে চালিয়েছে। তাকে কোথাও পাওয়া যায়নি। বিভিন্ন প্রযুক্তির সাহায্যে তাকে গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। ##
বিভাগের সংবাদ।

নিউজ ডেস্ক, চকরিয়া২৪।