চকরিয়ায় স্ত্রীর মামলায় পাষন্ড মনজুর মাস্টার গ্রেফতার

MANJUR ALAM CHAKARIA 23-9-20

চকরিয়া অফিস:
চকরিয়ায় স্ত্রী নির্যাতনকারী পাষন্ড মনজুর মাস্টারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। থানার উপপরির্দশক (এসআই) আবদুল্লাহ আল মাসুদের নেতৃত্বে গত ২২সেপ্টেম্বর বিকেলে চিরিঙ্গা ষ্টেশনে পুলিশ এ অভিযান চালায়। ধৃত মনুজর মাস্টারকে আদালতের মাধ্যমে ওইদিনই জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। ওই চকরিয়া পৌরসভা ৩নং ওয়ার্ডের বাটাখালী তরছঘাট গ্রামের মৃত আবুল কাশেমের পুত্র।
প্রাপ্ত তথ্যে ও অভিযোগে জানাগেছে, ২০১১সনের ৪ এপ্রিল ইসলামী শরীয়াহ মতে ও নিকাহনামা মূলে মনজুর আলম ও আসমাউল হোসনার বিয়ে হয়। সংসারে দুই ছেলে মেয়ে হেলমি (৮) ও হুবাইব (৩) রয়েছে। কিন্তু বিগত দীর্ঘ ২১ মাস ধরে শাররীক, মানষিক নির্যাতনের সময় বিভিন্ন ভাবে মারধর করতো। উক্ত সময়ে কোন ধরণের খোরপোষ বহন করেনি পাষন্ড স্বামী। স্ত্রীর পিত্রালয়ে থাকাবস্থা থেকে সর্বশেষ গত ১৭ জুলাই’২০ইং রাত ১০টায় আসামী মনজুর আলমের কাছ থেকে খোরপোষ চাইলে মনজুর আলমসহ অন্যান্য আসামীরা তাকে অমানবিক মারধরে করে এবং গলাটিপে হত্যার চেষ্টা চালায়। এক পর্যায়ে ঘর থেকে তাড়িয়ে দেয়। ওই সময়  ৫০ হাজার টাকা মূল্যের এক ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে ফেলে । স্ত্রীর পরিবারের সদস্যরা ও স্থানীয় লোকজন এগিয়ে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। এঘটনায় গত ২ আগষ্ট’২০ইং স্ত্রী আসমাউল হোসনা বাদী হয়ে চকরিয়া থানায় একটি মামলা (নং২/২০,জিআর ৩৩৭/২০) দায়ের করেন। এতে বিবাদী করা হয়েছে অভিযুক্ত মৃত আবুল কাশেমের পুত্র ও কেন্দ্রীয় উচ্চ বিদ্যালয় শিক্ষক মনজুর আলম, তার ভাই নুর মোহাম্মদ, মোহাম্মদ আলীর পুত্র আবুল কালাম, বদিউল আলম ও মো:ছাবেরসহ অজ্ঞাত কয়েকজনকে।

অপরদিকে গত ২৪ আগষ্ট’২০ইং আদালতেও একটি সিআর মামলা করেন ভূক্তভোগী অসহায় স্ত্রী আসমাউল হুসনা। ওই মামলায় আদালত সরাসরি গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করেছে।
এসআই আবদুল্লাহ আল মাসুদ জানিয়েছেন, স্ত্রীর মামলায় স্বামী মনজুর আলমকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। ##

, বিভাগের সংবাদ।

নিউজ ডেস্ক, চকরিয়া২৪।