দৈনিক কক্সবাজার ও দেশবিদেশ পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

Protibad_1

ডুলাহাজারায় জমি দখলে বাঁধা, ভূমিদস্যুদের হামলায় নারীসহ আহত ৩ শিরোনামে গত ১০ জানুয়ারী ২০২১ তারিখ দৈনিক কক্সবাজার ও দৈনিক দেশবিদেশ পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছেন ভূক্তভোগীরা। প্রতিবাদলিপিতে তারা দাবী করেন, ওইদিনের প্রকাশিত সংবাদটি মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও কাল্পনিক বানোয়াট সংবাদ। একটি স্বার্থন্বেষী মহল অনৈতিক সুবিধা আদায়ে ব্যর্থ হয়ে সামাজিকভাবে তাদের হেয়প্রতিপন্ন করার জন্য মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য সরবরাহ করে এসব পত্রিকায় তাদের বিরুদ্ধে রিপোর্ট ছাপিয়েছে। ভূক্তভোগীদের দাবী, ওই দিনের পত্রিকায় যে জায়গা নিয়ে বিরোধের কথা বলা হয়েছে মুলত: ওই জায়গার বায়নানামা সূত্রে মালিক হচ্ছেন জাগের হোছাইন, নুরুল আবছার ও আলী আহামদ। জায়গার পূর্বেকার মালিক রোজিনা আক্তারের কাছ থেকে ডুলাহাজারা মৌজার বি, এস ৭৫০ নম্বর খতিয়ানের সৃজিত নামজারী ২২৬১ নম্বর খতিয়ানের বি, এস ৫৯৫৫ দাগের ৩.০৫ শতক জমি গত ৩০ ডিসেম্বর ২০২০ইং তারিখ রেজিষ্ট্রার্ড বায়নানামা দলিল মূলে তারা ক্রয় করে শান্তিপূর্ণভাবে ভোগ দখলে রয়েছেন। পরবর্তীতে পাশর্^বর্তী কিছুলোক দূর্লোভের বশিভূত হয়ে ক্রয়কৃত জমির বসতঘর, সীমানা দেয়াল ভেঙ্গে গুড়িয়ে দিয়ে উক্ত জমি জবর দখল করে নেয়ার হুমকি দেয়ার পর এক পর্যায়ে তারা গত ৩১ জানুয়ারী ২০২০ ইং তারিখ বসতভিটার জমির সামনে আসিয়া রাস্তার উপর হাঁকাবকা শুরু করে। এ সময় তারা পুনরায় জাগের হোসেন গং এর ক্রয়কৃত জমির বসতঘর, সীমানা দেয়াল ভেঙ্গে গুড়িয়ে দিয়ে উক্ত জমি জবর দখল করে নেয়ার হুমকি দিলে জমির মালিক জাগের হোছাইন বাদি হয়ে ডুলাহাজারা ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের পূর্ব মাইজপাড়া এলাকার হামিদুল হকের ছেলে তামজিদ মোহাম্মদ শাহেদ, মৃত ছৈয়দ আহামদের ছেলে হামিদুল হক, হামিদুল হকের স্ত্রী লতিফা খানম ও ছেলে তৌহিদুল আলমসহ আরো অজ্ঞাতনামা আসামী দেখিয়ে চকরিয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। জমির মালিক, জাগের হোছাইন দাবী করেন, থানায় অভিযোগের প্রেক্ষিতে চকরিয়া থানা পুলিশ কয়েকবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করলেও কোন প্রতিকার পাননি তারা। ফলে নিরুপায় হয়ে ক্রয়কৃক জমির অপর মালিক আলী আহামদ বাদী হয়ে গত ৫ জানুয়ারী ২০২১ তারিখ বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট চকরিয়া আদালতে একটি সি আর মামলা নং-১৩/২১ দায়ের করেন। ওই মামলাতেও তামজিদ মোহাম্মদ শাহেদ গংকে আসামী করা হয়। পরবর্তীতে বিজ্ঞ আদালত মামলাটি তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের জন্য সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার চকরিয়া সার্কেলকে নির্দেশ দেন। ভূক্তভোগীরা আরও দাবী করেন, থানায় অভিযোগ ও আদালতে মামলা দায়েরের পর আসামীরা হয়রানী করার উদ্দেশ্যে সুপরিকল্পিতভাবে গত ৭ জানুয়ারী ২০২১ইং তারিখ বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট চকরিয়া আদালতে জমির মালিকসহ অন্যন্যদের বিরুদ্ধে একটি হয়রানীমুলক মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে ওই মামলার কপি মিডিয়া কর্মীদের সরবরাহ করে তাদের মাধ্যমে পত্রিকায় মিথ্যা রিপোর্ট ছাপিয়ে প্রকৃত ঘটনা আড়াল করার পাশাপাশি আমাদেরকে সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার চেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছে। আমরা এ মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও কাল্পনিক বানোয়াট এ সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। পাশাপাশি এ ঘটনার আসল রহস্য উদঘাটন করে মিডিয়ায় তুলে ধরার জন্য স্থানীয় সংবাদ কর্মীদের সহযোগীতা কামনা করছি। ###

প্রতিবাদকারী
জাগের হোছাইন, পীং-মৃত নজির হোসেন, সাং-বালুরচর ৬ নম্বর ওয়ার্ড, ডুলাহাজারা
নুরুল আবছার, পীং- মৃত ছৈয়দ আহমদ, সাং-পাগলিরবিল,৮ নম্বর ওয়ার্ড, ডুলাহাজারা
আলী আহামদ, পীং-মৃত মোজাম্মেল হক, সাং- নতুনপাড়া ৮ নম্বর ওয়ার্ড, ডুলাহাজারা,
রুহুল আমিন, পীং-গিয়াস উদ্দিন, ডুলাহাজারা, রোজিনা আক্তার পীং-মৃত জামাল আহামদ, সাং জুবলী রোড চট্টগ্রাম ও কমর উদ্দিন,পীং জামাল আহামদ সাং-ডুলাহাজারা, চকরিয়া কক্সবাজার।

বিভাগের সংবাদ।

নিউজ ডেস্ক, চকরিয়া২৪।