চকরিয়ার ডুলাহাজারায় ক্লাব ঘরে হামলা ও ভাংচুর

received_729461381035489

চকরিয়ার ডুলহাজারায় ক্লাব ঘরে হামলা, ভাংচুর ও মালামাল লুটপাটের ঘটনা ঘটেছ। হামলায় বিচার কার্যে থাকা এক শালিসকারকে আহত করা হয়েছে। ১১জানুয়ারী বিকাল ৪টার দিকে উপজেলার ডুলাহাজারা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের রংমহল বঙ্গবন্ধু ফ্রেশক্লাবে ঘটেছে এ ঘটনা। এনিয়ে থানায় দুইটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
অভিযোগে জানাগেছে, ডুলাহাজারা রংমহল এলাকায় স্থাপিত রংমহল বঙ্গবন্ধু ফ্রেশক্লাবের নামে বিগত ১ জুলাই’২০১১ইং তারিখে ক্লাবের নেতৃবৃন্দ এক খন্ড জমি ক্রয় করেন। জমি ক্রয়ের পর থেকে শান্তিপূর্ণভাবে ভোগ দখলেও থাকেন। ক্লাবের ঘর নির্মাণ কাজের জন্য টাকার প্রয়োজন হওয়ায় স্থানীয় একই এলাকাার নুরুল কবির নুরুর পুত্র কামাল উদ্দিনকে ৩বছর চুক্তিতে ১লক্ষ ২০ হাজার টাকায় বিগত ১ডিসেম্বর’২০১৮ইং হতে ক্লাবের জমি বন্ধক দেন। সম্প্রতি বন্ধকের মেয়াদ পূর্ণ হলে ক্লাব কর্তৃপক্ষ বন্ধক মুক্ত করেন। কিন্তু ক্লাব ঘরের ওই জমির প্রতি লুলোপ দৃষ্টি পড়ে বন্ধক গ্রহীতার ভাই আবদুল হামিদ, আবদুল হাকিম সোনা মিয়া, নুরুল কবিরের স্ত্রী রেজিয়া বেগমের। এনিয়ে ক্লাবের পক্ষ থেকে থানায় অভিযোগ দেয়া হলে থানার উপপরিদর্শক ও ডুলাহাজারা বিটপুলিশিংয়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসার মো: কামরুজ্জামান বিষয়টি স্থানীয়দের নিয়ে সমাধানের উদ্যোগ নেন। সর্বশেষ ১১জানুয়ারী বিকাল ৪টার তার নির্দেশনা অনুযায়ী ডুলাহাজারা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি জামাল হোসেন চৌধুরীসহ দু’পক্ষের প্রতিনিধিদের নিয়ে শালিসী বৈঠকে প্রায় চুড়ান্ত হয়ে। বৈঠকে ক্লাব কর্তৃপক্ষকে ১লক্ষ ৯০ হাজার টাকা ক্ষতিপূূরণ দেয়ার জন্য সিদ্ধান্ত হলে, এর প্রেক্ষিতে বন্ধক গ্রহীতা পক্ষকে নগদে ৯০ হাজার টাকা তুলে দেন এবং অবশিষ্ট ১লক্ষ টাকা আগামী কয়েকদিনের মধ্যে পরিশোধের জন্য সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। কিন্তু অতর্কিত অবস্থায় অভিযুক্তরা আরো ভাড়াটিয়া লোকজন নিয়ে হাতুড়ী, লোহার রড ও উচ্ছেদ সরঞ্জামাদী নিয়ে ক্লাব ঘরে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট চালায়। ভাংচুরে ক্লাবের অন্তত লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধন হয়েছে। হামলার এক পর্যায়ে রংমহল বঙ্গবন্ধু ফ্রেশক্লাবের পক্ষে থাকা শালিসকার প্রতিনিধি চকরিয়া পৌরসভা ৮নং ওয়ার্ডের নামারচিরিংগা মুন্সিপাড়ার মরহুম মো: ইব্রাহিমের পুত্র শোয়াইব মো: রুবেলকে ধারালো অস্ত্রে মারধরে আহত করে। তার কাছ থেকে ছিনিয়ে নেয় রক্ষিত নগদ ৫০ হাজার টাকা ও ৩০ হাজার টাকা মূল্যের একটি মোবাইল সেট। এ ঘটনায় রংমহল বঙ্গবন্ধু ফ্রেশক্লাব কর্তৃপক্ষ ও আহত রুবেল বাদী হয়ে এদিন রাতে থানায় পৃথক দুইটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাকের মো: জুবাইর বলেন, ঘটনার বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেয়েছেন। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উপপরিদর্শক কামরুজ্জামানকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। প্রমাণিত হলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

, বিভাগের সংবাদ।

নিউজ ডেস্ক, চকরিয়া২৪।