সর্বশেষ শিরোনাম
চকরিয়া প্রেসক্লাব সভাপতি আবদুল মজিদকে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের গণসংবর্ধনাচকরিয়ায় ৩মাসের অন্ত:স্বত্ত্বা স্ত্রীকে নির্যাতন করে তাড়িয়ে খাইরু নামের এক প্রতারকের ৩য় বিয়েঅন্ধকারাচ্ছন্ন সমাজের আলো ও সফল নেতৃত্বের মডেল ছিলেন জিএম রহিমুল্লাহ‘তারুণ্যের আলো’ সামাজিক সংগঠনের আত্মপ্রকাশজেলা জজ আদালতের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালিতচকরিয়ায় বঙ্গবন্ধুর ৪৪তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিতজাতীয় শোক দিবস ও শাহাদাত বার্ষিকী এমপি জাফর আলমের ব্যবস্থাপনায় চকরিয়া-পেকুয়ায় ৩০ পশুর গণভোজচকরিয়া পৌরসভায় মসজিদ ভিত্তির আদর্শ সমাজ ব্যবস্থা কাহারিয়াঘোনা ও করইয়াঘোনা গ্রাম সর্বমহলের নজর কেড়েছেচকরিয়া গ্রামার স্কুলে ৩ কোটি টাকার নতুন ভবন বরাদ্ধ দেয়া হবে ঈদপূর্ণমিলনীতে এমপি জাফরনিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

কক্সবাজারে এখনো বাড়ি ফিরেনি ৫ স্কুল ছাত্র, স্বজনদের আহাজারি

[post-views]

received_734659976877836

কক্সবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ও পৌর প্রিপ্র্যারাটরি উচ্চ বিদ্যালয়ের পাঁচ ছাত্র নিখোঁজ হয়েছে। আজ রোববার (৯ সেপ্টেম্বর) বিদ্যালয়ে গিয়ে আর বাড়ি ফিরে আসেনি তারা। এই নিয়ে তাদের পরিবারে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে।

নিখোঁজ ছাত্ররা হলো, সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র ও উত্তর রুমালিয়ারছড়া এলাকার উপাধ্যক্ষ মৌ জহির আহমদের পুত্র সাইয়েদ নকীব, অষ্টম শ্রণির ছাত্র ও বাজারঘাটা এলাকার এড. আব্দুল আমিনের বড় ছেলে এইচ এ গালিব উদ্দিন, অষ্টম শ্রেণীর মেধাবী ছাত্র ও বাসটার্মিনাল এলাকার আকতার কামাল চৌধুরীর ছেলে শাহরিয়ার কামাল সাকিব ও তার খালাতো ভাই অষ্টম শ্রেণির ছাত্র একই এলাকার ফয়েজুল ইসলামের পুত্র শাফিন নূর ইসলাম এবং পৌর প্রিপ্র্যারাটরি উচ্চ বিদ্যালয়ের এক ছাত্র। তবে তার পরিচয় পাওয়যা যায়নি।

নিখোঁজ সাকিব ও শাফিনের স্বজনেরা জানান, দু’জন সকাল ১১টায় বাসটার্মিনাল বাসা থেকে বিদ্যালয়ে যায়। পরে আর ফিরে আসেনি। আত্মীয়-স্বজনসহ সম্ভাব্য বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করেও রাত পর্যন্ত তাদের কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি।

সাইয়েদ নকীবের বাবা মৌ জহির আহমদ জানান, তার সকাল ৭টায় ও ১০টায় দু’টো প্রাইভেট কোচিং আছে। দুটিতে যায়নি। সর্বশেষ ১১টায় তার সাথে মোবাইলে কথা হয়েছে। প্রাইভেটের টাকা দেয়ার জন্য ৬০০ টাকাও নিয়েছে। ১২টায় স্কুল থাকলেও সে স্কুলে যায়নি।

গালিবের বাবা জানান, এইচ এ গালিব উদ্দিন দুপুর ১২ ঘটিকার সময় স্কুলে যাওয়ার পর হতে নিখুঁজ হয়ে যায়।

কক্সবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রামমোহন সেন বলেন, সাকিব ও শাফিনের ব্যাপারে তাদের পরিবারের লোকজন আমাকে ফোন করেছিলেন। বিষয়টি জানতে পেরে আমি উপস্থিত খাতা দেখেছি। কিন্তু তারা বিদ্যালয়ে আসেনি। তবে অন্য দু’জনের অভিভাবকেরা আমাকে ফোন করেনি। তাই তারা বিদ্যালয়ে উপস্থিত ছিলো কিনা জানতে পারছি না।

হঠাৎ চার ছাত্র নিখোঁজ হওয়া তাদের পরিবারে উৎকণ্ঠা বিরাজ করবে। তারা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে। একই সাথে বিদ্যালয়ে কর্তৃপক্ষও চিন্তিত হয়েছে। এভাবে ছাত্ররা কোথায় যেতে পারে তা কারো ধারণায় আসছে না। তবে তারা সবাই মিলে কোথাও বেড়াতে গিয়ে থাকতে পারে বলে অনেক করছেন। আবার হয়তো কারো কোনো গন্ডগোল হওয়া আটকা থাকতেও পারে। অথবা কোনো অপচক্রের হাতে পড়েছে কিনা তার সন্দেহও দানা বেঁধেছে সবার মনে।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে কক্সবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বলেন, ছাত্র নিখোঁজের ব্যাপারে জানাতে কেউ আমাদের কাছে আসেনি।

, বিভাগের সংবাদ।

মুসা বিপ্লব,কক্সবাজার