সর্বশেষ শিরোনাম
মাতামুহুরী নদীর নতুন সেতু নির্মানে অধিগ্রহণে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের সামনে হামলার ঘটনায় মামলাচকরিয়া আল ইয়ামিন মডেল মাদরাসার অনুষ্ঠানে ফজলুল করিম সাঈদীচকরিয়ায় আমেরিকান প্রবাসী পরিবারের বিরুদ্ধে নিরীহ পরিবারের বসতভীটা জবর দখল চেষ্টা ও গাছ কেটে লুটের অভিযোগশ্রীলঙ্কায় সিরিজ বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২৯০চকরিয়ায় বাস-ট্রাক ত্রিমূখি দূর্ঘটনায় মোটর আরোহী এনজিও কর্মী নিহতপূর্ববড় ভেওলায় খলিল চৌং ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ফাইনালে চেয়ারম্যান ফজলুল করিম সাঈদীচকরিয়ায় প্রবাসীর স্ত্রী ও মাকে বসতঘরে জিম্মিকরে চাঁদা দাবী : ভাংচুর ও প্রাণনাশের হুমকিচকরিয়ায় চারুকলা গবেষণা কেন্দ্রের নতুন জেলা কমিটির অভিষেক ও শপথ অনুষ্ঠান সম্পন্নশ্যালিকাকে বখাটের ঢিল, প্রতিবাদ করায় হামলাচকরিয়া পৌর সদরে মাহে রমজান উপলক্ষে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান

চলচ্চিত্র পরিচালক আমজাদ হোসেন আর নেই

[post-views]

3c7401lm

দেশবরেণ্য চলচ্চিত্র পরিচালক আমজাদ হোসেন আর নেই। (ইন্নালিল্লাহি…রাজিউন)। ব্যাংককের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার বিকেল ৩টার দিকে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন চলচ্চিত্র পরিচালক আমজাদ হোসেন। তার বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর।

আমজাদ হোসেনের পরিবারের বরাত দিয়ে ডিরেক্টরস গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক ও চলচ্চিত্র পরিচালক এস এ হক অলিক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, আমজাদ হোসেনের বড় ছেলে গোলাম সোহরাব দোদুল ব্যাংকক থেকে মৃত্যুর বিষয়টি আমাকে জানিয়েছেন। আমরা এখন বিস্তারিত জানার চেষ্টা করছি।

এর আগে, নভেম্বরের মাঝামাঝি ব্রেইন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে ঢাকার একটি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন আমজাদ হোসেন। তখন তাকে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়। পরিস্থিতির একটু উন্নতি হলে তাকে নেয়া হয় থাইল্যান্ডে। দুই ছেলে সোহেল আরমান ও সাজ্জাদ হোসেন দোদুলও সেখানে তার সঙ্গে ছিলেন।

১৯৪২ সালের ১৪ আগস্ট জামালপুরে জন্মগ্রহণ করেন আমজাদ হোসেন। পঞ্চাশের দশকে ঢাকায় এসে সাহিত্য ও নাট্যচর্চার সঙ্গে জড়িত হন। প্রথমে তিনি অভিনয় করেন মহিউদ্দিন পরিচালিত ‘তোমার আমার’ সিনেমায়।

আমজাদ হোসেন একসময় চলচ্চিত্র পরিচালক জহির রায়হানের সহকারী হিসেবে কাজ শুরু করেন। ১৯৬৭ সালে তিনি নিজেই চলচ্চিত্র নির্মাণ করেন।

আমজাদ হোসেনের পরিচালনায় নির্মিত জনপ্রিয় ছবিগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে- ‘বাল্যবন্ধু’, ‘পিতা পুত্র’, ‘এই নিয়ে পৃথিবী’, ‘বাংলার মুখ’, ‘নয়নমণি’, ‘গোলাপী এখন ট্রেনে’, ‘সুন্দরী’, ‘কসাই’, ‘জন্ম থেকে জ্বলছি’, ‘দুই পয়সার আলতা’, ‘সখিনার যুদ্ধ’, ‘ভাত দে’, ‘হীরামতি’, ‘প্রাণের মানুষ’, ‘কাল সকালে’, ‘গোলাপী এখন ঢাকায়’ ‘গোলাপী এখন বিলেতে’ ইত্যাদি।

গুণী এই পরিচালক ‘গোলাপী এখন ট্রেনে’ এবং ‘ভাত দে’ চলচ্চিত্রের জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন। এছাড়া সরকার তাকে একুশে পদকেও ভূষিত করে।

, বিভাগের সংবাদ।

নিউজ ডেস্ক, চকরিয়া২৪।