চকরিয়ায় মসজিদের সভাপতিকে মারধর শীর্ষক সংবাদের প্রতিবাদ

গত ২৭/০৫/২০১৮ইং দৈনিক হিমছড়ি ও আমাদের কক্সবাজার পত্রিকায় “চকরিয়ায় মসজিদের জমি লাগিয়াতের টাকা চাওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে মসজিদ কমিটির সভাপতিকে মারধর” শীর্ষক প্রকাশিত সংবাদটি আমার দৃষ্টি গোচর হয়েছে। সংবাদটি সম্পূর্ণ মিথ্যা ভিত্তিহীন ও সাজানো। সংবাদের সাথে বাস্তবতার কোন মিলনাই। সংবাদটি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে পরিকল্পিত মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে পত্রিকায় ভিত্তিহীন ও সাজানো সংবাদ প্রচার করেছে। প্রকৃত ঘটনা হচ্ছে; চকরিয়া উপজেলার সুরাজপুর মানিকপুর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড পূর্বসুরাজপুর মগপাড়াবিল গ্রামের জামে মসজিদে প্রায় ৭/৮কানি পরিমাণে জমি রয়েছে। মসজিদের মালিকানাধীন পাশ্ববর্তী কিছু পরিমাণে জমিতে অবৈধভাবে জবর দখলের মাধ্যমে বসতবাড়ি নির্মাণ করেছে বিএনপি নেতা জয়নাল আবদীন। মূলত: আমি (শহিদুল্লাহ) মসজিদ কমিটির সাবেক সেক্রেটারী হিসেবে গত ২৫মে বিকাল ২.৩০ দিকে মসজিদে জুমার নামাজের পর মুসল্লীদের নিয়ে বসে মসজিদের জমি দখল ছেড়ে দেওয়ার জন্য বলিলে ক্ষিপ্ত হয়ে অভিযুক্ত দখলবাজ মৌলভী জয়নাল আবদীন, তার ভাই মহিউদ্দিন, ছেলে আলমগীর, রাকিব ও মিজানের নেতৃত্বে ভাড়াটিয়া লোকজনসহকারে হাতে দা কিরিছ, হাতুড়ী লোহার রড দিয়ে আমার উপর অতর্কিতভাবে হামলা চালায়। হামলাকালে আমার মাথায়, হাতে, কোমড়ে, পীঠেসহ সর্বশরীরে কুপিয়ে ও পিঠিয়ে গুরুতর জখম করে। স্থানীয় লোকজন ও মুসল্লীরা এগিয়ে এসে আমাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আমাকে আশংখাজনক অবস্থায় কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে রেফার করেছে। বর্তমানেও আশংখাজনক অবস্থায় রয়েছি। সংবাদে উল্লেখিত জয়নাল আবদীন নিজেকে মসজিদ কমিটির সভাপতি পরিচয় দিয়েছে। মূলত: বর্তমানে মসজিদের কোন কমিটি নেই। পূর্বের কমিটির সভাপতি হচ্ছেন নুর মোহাম্মদ ও আমি সম্পাদক ছিলাম। আমাকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার ও জেলা সদর হাসপাতালে রেফারসহ সকল কিছু থানা পুলিশ দেখেছে এবং ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। আমি এ ঘটনা নিয়ে আমার পরিবারের মাধ্যমে থানায় মামলার প্রস্তুতি নিয়েছি। তাই আমি প্রকাশিত উক্ত মিথ্যা সংবাদে প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট কাউকে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য আহবান জানাচ্ছি এবং সংবাদের প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
প্রতিবাদকারী- মো: শহিদুল্লাহ পিতা- হাসান আলী
সাবেক সেক্রেটারী
পূর্বসুরাজপুর মগপাড়াবিল গ্রামের জামে মসজিদ
৭নং ওয়ার্ড, পূর্বসুরাজপুর,চকরিয়া,কক্সবাজার।

বিভাগের সংবাদ।

নিউজ ডেস্ক, চকরিয়া২৪।