সর্বশেষ শিরোনাম
দৈনিক মানবকণ্ঠের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মৃত্যুতে চকরিয়া প্রেসক্লাবের শোকচকরিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন চান সাবেক ছাত্রনেতা ও সমবায়ী সেলিম উল্লাহ এমএমতবিনিময়কালে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী ফজলুল করিম সাঈদীচকরিয়ায় দুঃস্থ ও প্রতিবন্ধী মহিলাদের মাসব্যাপি সেলাই প্রশিক্ষণ উদ্বোধনচকরিয়া আনওয়ারুল উলুম কামিল মাদরাসায় এমপি জাফর আলমের সংবর্ধনায়মাতারবাড়ীর যুবলীগ নেতা হেলাল হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবীতে বিক্ষোভ ও মানব বন্ধনচকরিয়া পৌর এলাকায় গণসংযোগে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী রেজাউল করিমশুধু পার্লামেন্টে নয়, জনগণের অধিকারের কথা যারা বলে তারাই বিরোধী দল: খালেদা জিয়াউন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই চলবে: প্রধানমন্ত্রীআমার স্বপ্ন আছে পরিকল্পিত উন্নয়নে আগামীদিনে চকরিয়া-পেকুয়া উপজেলাকে ঢেলে সাজানো হবে

ঐক্যফ্রন্ট গঠনে ভুল ছিল: ড. কামাল

[post-views]

208091_1

জামায়াতের সঙ্গে ঐক্য করে অনিচ্ছাকৃত ভুল হয়েছে। জামায়াতের সঙ্গে কখনও রাজনীতি করিনি, ভবিষ্যতেও করবো না বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন।

তিনি বলেন, আমি যখন ঐক্যে সম্মতি দিয়েছি তখন জামায়াতের কথা আমার জানা ছিল না। এটা ঐক্যফ্রন্ট গঠনে ভুল ছিল।

শনিবার বিকেলে রাজধানীর মতিঝিলে গণফোরামের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের কেন্দ্রীয় কমিটির নেতাদের সঙ্গে বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

ড. কামাল বলেন, জামায়াতের ২২ জন প্রার্থীকে প্রতীক দেওয়া হবে, বিষয়টি আমি জানতাম না। দেওয়ার পর বিএনপির কাছে আমি ব্যাখ্যা চেয়েছিলাম। তারা বলেছে সবাই ধানের শীষের প্রার্থী। জামায়াতের কেউ নেই।

তিনি বলেন, একটা সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে দেশের সংসদ গঠিত হোক, এটা নিয়ে কোনো দ্বিমত নেই। কিন্তু ৩০ ডিসেম্বর যা ঘটেছে সেটা তো আপনারা সংবাদ মাধ্যমে পাচ্ছেন।

ঐক্যফন্টের শীর্ষ নেতা বলেন, সরকার চাইলে দুই তিন মাস বা তার চেয়ে কম সময়ের মধ্যে একটা নির্বাচন করা যেতে পারে।

এক প্রশ্নের জবাবে গণফোরাম সভাপতি বলেন, আমি মনে করি জামায়াত ছেড়ে আসতে বিএনপিকে চাপ দেওয়া যেতে পারে।

বিএনপির সঙ্গে জামায়াত থাকলে ভবিষ্যতে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থাকবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি পরিষ্কার ভাষায় বলতে চাই, জামায়াত নিয়ে কোনো রাজনীতি নয়, অবিলম্বে এ বিষয়ে সুরাহা চাই।

তিনি আরও বলেন, সরকারকে বলবো বিতর্ক না বাড়িয়ে একটা সমাধান করা হোক। গণতন্ত্রের ব্যাপারে, সংবিধানের ব্যাপারে অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচনের ব্যাপারে আমাদের মধ্যে ঐক্য আছে। যেখানে এতগুলো মৌলিক ব্যাপারে ঐক্যমত আছে, সেখানে সরকারকে এটার প্রতি শ্রদ্ধা রেখেই কিন্তু সুযোগ দেওয়া উচিত যাতে সবাই অংশগ্রহণ করতে পারে। সবার আস্থা নিয়ে যে কেউ সরকার গঠন করে, তারা সেভাবে সরকার গঠন করলে তাদেরও দায়িত্ব পালন করা সহজ হয়, দেশও যেটা প্রাপ্য সেটা পায়।

এ সময় ২৩ এবং ২৪ মার্চ ঢাকায় গণফোরামের জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান ড. কামাল হোসেন।

বিভাগের সংবাদ।

নিউজ ডেস্ক, চকরিয়া২৪।