সর্বশেষ শিরোনাম
দৈনিক মানবকণ্ঠের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মৃত্যুতে চকরিয়া প্রেসক্লাবের শোকচকরিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন চান সাবেক ছাত্রনেতা ও সমবায়ী সেলিম উল্লাহ এমএমতবিনিময়কালে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী ফজলুল করিম সাঈদীচকরিয়ায় দুঃস্থ ও প্রতিবন্ধী মহিলাদের মাসব্যাপি সেলাই প্রশিক্ষণ উদ্বোধনচকরিয়া আনওয়ারুল উলুম কামিল মাদরাসায় এমপি জাফর আলমের সংবর্ধনায়মাতারবাড়ীর যুবলীগ নেতা হেলাল হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবীতে বিক্ষোভ ও মানব বন্ধনচকরিয়া পৌর এলাকায় গণসংযোগে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী রেজাউল করিমশুধু পার্লামেন্টে নয়, জনগণের অধিকারের কথা যারা বলে তারাই বিরোধী দল: খালেদা জিয়াউন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই চলবে: প্রধানমন্ত্রীআমার স্বপ্ন আছে পরিকল্পিত উন্নয়নে আগামীদিনে চকরিয়া-পেকুয়া উপজেলাকে ঢেলে সাজানো হবে

২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে সকল কর্মীর সম্পত্তির হিসাব দেয়ার নির্দেশ ভূমিমন্ত্রীর

[post-views]

208075_1
চট্টগ্রাম: ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে ভূমি মন্ত্রণালয়সহ দেশের সব ভূমি অফিসের কর্মকর্তাদের স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির হিসাব দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ।শনিবার দুপুরে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের বঙ্গবন্ধু হলে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এ নির্দেশের কথা জানান মন্ত্রী। খবর বাসসের।

সারাদেশের ভূমি অফিসগুলোতে অনেক সমস্যা রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘কর্মকর্তাদের সাহস দিতে চাই। মাঠ পর্যায়ে হাত দিচ্ছি। উপজেলা-ইউনিয়নের সব ভূমি অফিসকে সিসিটিভির আওতায় নিয়ে আসবো। ভয়েস রেকর্ডিংয়ের সিস্টেম থাকবে বিভিন্ন পয়েন্টে। এককথায় দুর্নীতির ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতিতে থাকবো।’

সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ বলেন, ‘ আমি সবার সেবক হিসেবে থাকতে চাই। কিন্তু যারা নিজেদের অভ্যাস পাল্টাতে পারবেন না তাদের এখনই কেটে পড়া উচিত। আমি এসেছি সম্মানের জন্য। দুর্নীতি যেদিন স্পর্শ করবে সেদিন হবে আমার শেষ দিন। যে কেউ প্রশ্ন করলে আমি জবাব দিতে বাধ্য থাকবো।’

মন্ত্রী বলেন, শিগ্গিরই বিভিন্ন ভূমি অফিসে সারপ্রাইজ ভিজিট শুরু হবে। ভূমি অধিগ্রহণের নোটিশ ইস্যুর পর মামলা হয়নি উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘ভূমি অফিসের নিচু শ্রেণির কর্মীরা এর সঙ্গে জড়িত থাকে। তাই এমন একটি সিস্টেম বের করছি, যাতে নোটিশ ইস্যুর পর আর মামলা না টেকে।’

তিনি বলেন, বে টার্মিনাল, কর্ণফুলী টানেল, চট্টগ্রাম-কক্সবাজার রেললাইন, অর্থনৈতিক অঞ্চলসহ সব বড় প্রকল্পের ভূমি ছাড়ে প্রায়োরিটি দেয়া হচ্ছে। উপমহাদেশের প্রথম টানেল হচ্ছে চট্টগ্রামে।

অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, কর্ণফুলীর দুই পাড়ের সব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হবে। কেউ ছাড় পাবেন না।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সভাপতি কলিম সরওয়ার, সাবেক সভাপতি আলী আব্বাস, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি নাজিমুদ্দীন শ্যামল, প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শুকলাল দাশ, সিইউজের সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস ও প্রেস ক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ ।

, বিভাগের সংবাদ।

নিউজ ডেস্ক, চকরিয়া২৪।