সর্বশেষ শিরোনাম
বদিকে দিয়ে মাদক আর শাজাহান খানকে দিয়ে সড়ক নিয়ন্ত্রণ!চকোরী নার্সারী মালিক ও পরিচালককে পিটিয়ে জখম, ভাংচুর ও টাকা ছিনতাইচকরিয়ায় শ্রমিক সাথে নিয়ে মনোনয়নপত্র দাখিল করলেন আরাকান শ্রমিকের সভাপতি জহিরচকরিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে বেলাল উদ্দীন শান্তের মনোনয়ন পত্র দাখিলচকরিয়া উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী হেলাল মুন্সীর মনোনয়নপত্র দাখিলচকরিয়ায় শাহ আমানত হজ্ব কাফেলার নিবন্ধন কার্যক্রম উদ্বোধনে দোয়া মাহফিলচকরিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান-ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১৭ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিলচকরিয়া উপজেলা নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আওয়ামী লীগ নেতা সাঈদীর মনোনয়নপত্র দাখিলচিরনিদ্রায় শায়িত হলেন কবি আল মাহমুদ‘উপজেলা নির্বাচনে কেউ অংশ নিলে সাংগঠনিক ব্যবস্থা’

পুলিশের হাতে যেন নিরীহ মানুষ হয়রানি না হয়: প্রধানমন্ত্রী

[post-views]

Untitled-1-74

ধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, পুলিশের হাতে যেন কোনো নিরীহ মানুষ হয়রানি শিকার না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। পুলিশের প্রত্যেক সদস্যের ওপর অর্পিত দায়িত্ব নিষ্ঠা ও সততার সঙ্গে পালনের মাধ্যমে জনগণের আস্থা অর্জন করে জনবান্ধব পুলিশে পরিণত হবে এবং এটাই আমার প্রত্যাশা।

সোমবার রাজধানীর রাজারবাগ পুলিশ লাইনসে ‘পুলিশ সপ্তাহ ২০১৯’ উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানিয়ে পুলিশ বাহিনীর সদস্যদের উদ্দেশে তিনি বলেন, জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস দমনে পুলিশ যেমন উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রেখেছে, তেমনি মাদক নির্মূল ও নিরাপদ সড়ক গড়ে তুলতেও তাদের অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে। আর কোনো নিরীহ মানুষ যেন পুলিশের হাতে হয়রানির শিকার না হয় সেদিকেও খেয়াল রাখতে হবে। কোনো মানুষ হয়রানির শিকার হলে তার পাশে দাঁড়াতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আপনারা বাংলাদেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে এসেছেন। বাংলার আনাচে-কানাচে শান্তি নিরাপত্তা বজায় থাকলে আপনাদের পরিবারের শান্তি বজায় থাকবে।

আমাদের পুলিশ বাহিনী জাতিসংঘে বীরত্বপূর্ণ অবদান রেখেছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা পুলিশ বাহিনীকে আরও আধুনিক করে গড়ে তোলার চেষ্টা করছি। এ জন্য তাদের উন্নত ট্রেনিয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ট্রেনিংয়ের মাধ্যমে সেবা যেন আরও বৃদ্ধি পায় সে চেষ্টা করছি।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী রাজারবাগ পুলিশ লাইনে পৌঁছলে এক দল পুলিশ সদস্য তাকে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা ও ঘোড়ায় চড়ে অভিবাদন জানিয়ে মঞ্চ পর্যন্ত নিয়ে আসেন। এরপর বার্ষিক কুচকাওয়াজে সালাম গ্রহণ, বীরত্বপূর্ণ কাজের জন্য পদক বিতরণ, পুলিশ নারী কল্যাণ সমিতির স্টল পরিদর্শন ও পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে কল্যাণ প্যারেড পরিদর্শন করেন।

বিভাগের সংবাদ।

নিউজ ডেস্ক, চকরিয়া২৪।