সর্বশেষ শিরোনাম
একজন সেবক হতে চাইসম্মিলিত প্রয়াসে ‘স্বপ্নের চকরিয়া’ গড়বো ইনশাল্লাহ-সাঈদীচকরিয়ায় পিকআপ মিনিট্রাক শ্রমিক ইউনিয়ন অফিসে তালা ঝুলিয়ে দেওয়ায় ক্ষুদ্ধ শ্রমিকরালক্ষ্যারচর ইউনিয়ন ও কৈয়ারবিল ১ ও ২নং ওয়ার্ড বর্ধিত সভায় সরওয়ার আলমচকরিয়ায় প্রধান শিক্ষকের অপসারণ দাবিতে শিক্ষার্থীদের স্কুলে তালা : ক্লাস বর্জনচকরিয়ায় শিশুকে ককটেল বাজি নিক্ষেপকরে ঝলসে দেয়াসহ ২ দফা হামলার ঘটনায় মামলাচকরিয়ায় অভিমান করে বিষপানে১ সন্তানের জনকের আত্মহত্যাচকরিয়ায় অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের উপজেলা প্রশাসনের সহায়তাচকরিয়া ও পেকুয়া উপজেলা পরিষদের নির্বাচিত চেয়ারম্যান-ভাইস চেয়ারম্যানের শপথ গ্রহণচকরিয়ায় পাওনা টাকা চাওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে বিদেশগামী যুবকের বাড়িতে হামলা ও ভাংচুর, আহত ৬চকরিয়ায় স্বচ্ছ, জবাবদিহিতা মূলক ও নাগরিক বান্ধব ইউপি গঠনে চেয়ারম্যানদের অংশগ্রহণে মতবিনিময় সভা

প্রধানমন্ত্রী ও সড়কমন্ত্রী কানিজ ফাতেমাকে দেয়া কথা রেখেছেন

[post-views]

kanij-fatema-mustak

২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর। রোহিঙ্গারা তাদের স্বদেশ মায়ানমারে নির্যাতিত হয়ে বাংলাদেশে আসছে অনবরত। সরকারি ভাবে দেখভাল করার জন্য কক্সবাজারে স্বশরীরে নিয়মিত থাকতেন সড়ক ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। রোহিঙ্গা শরনার্থীদের আশ্রয় দেয়ার কাজ, তাদের খাবার-দাবার, বিদেশীদের সমন্বয় ইত্যাদি কাজ করতে গিয়ে হাড়ভাঙ্গা পরিশ্রম করেছেন তিনি। রোহিঙ্গা পরিস্থিতি সামলানোর পাশাপাশি একই সাথে স্থানীয় আওয়ামী রাজনীতির স্বক্রিয় খোঁজ খবর রাখতেন। তখন থেকে কক্সবাজারের চারটি সংসদীয় আসনে আওয়ামীলীগ তথা মহাজোটের মনোনয়ন নিয়ে তোড়জোড় শুরু হয়। কক্সবাজার-৩ (কক্সবাজার সদর-রামু) আসনে কে পাচ্ছেন আওয়ামীলীগের মনোনয়ন-তা নিয়ে চেষ্টা, তদবির, লবিং এর অন্ত ছিলনা। কারণ ওবায়দুল কাদের একধারে দলের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পদবীধারী ও গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রনালয় সড়ক-সেতু মন্ত্রী। একপর্যায়ে আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের তখন এমপি সাইমুম সরওয়ার কমল ও মহিলা আওয়ামীলীগের সভানেত্রী কানিজ ফাতেমা আহমদকে বলেছিলেন-একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কক্সবাজার-৩ আসনে সাইমুম সরওয়ার কমলকেই আওয়ামীলীগের মনোনয়ন দেয়া হবে এবং নির্বাচনের পর সংরক্ষিত মহিলা আসনে কানিজ ফাতেমা আহামদকে মনোনয়ন দেয়া হবে। সড়ক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সেদিনের বক্তব্য গণমাধ্যম ফলাও করে প্রচার করেছিল। একইভাবে কানিজ ফাতেমা আহামদ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পাওয়ার জন্য দলীয় মনোনয়ন বোর্ডের সামনে বিগত সালের নভেম্বর মাসে সাক্ষাতকার দেয়ার সময় দলীয় সভানেত্রী, মনোনয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেদিন কানিজ ফাতেমা আহামদকে উদ্দ্যেশ্য করে বলেছিলেন-‘তিনমাস অপেক্ষা করো, তোমাকেও সংরক্ষিত আসন দিয়ে সংসদে নিয়ে আসবো ইনশাল্লাহ।’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সেকথাও সেদিন সর্বত্র চাওর হয়ে গিয়েছিল। আওয়ামীলীগের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের কানিজ ফাতেমা আহামদকে দেয়া কথা তাঁরা রেখেছেন। তাঁরা তাদের কথায় অবিচল থেকেছেন। গত ৮ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের সভায় কানিজ ফাতেমা আহামদকে সংরক্ষিত মহিলা আসনে চুড়ান্ত মনোনয়ন দেয়া হয়। এই মনোনয়নের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের তাঁদের কথা রেখেছেন

বিভাগের সংবাদ।

নিউজ ডেস্ক, চকরিয়া২৪।