সর্বশেষ শিরোনাম
একজন সেবক হতে চাইসম্মিলিত প্রয়াসে ‘স্বপ্নের চকরিয়া’ গড়বো ইনশাল্লাহ-সাঈদীচকরিয়ায় পিকআপ মিনিট্রাক শ্রমিক ইউনিয়ন অফিসে তালা ঝুলিয়ে দেওয়ায় ক্ষুদ্ধ শ্রমিকরালক্ষ্যারচর ইউনিয়ন ও কৈয়ারবিল ১ ও ২নং ওয়ার্ড বর্ধিত সভায় সরওয়ার আলমচকরিয়ায় প্রধান শিক্ষকের অপসারণ দাবিতে শিক্ষার্থীদের স্কুলে তালা : ক্লাস বর্জনচকরিয়ায় শিশুকে ককটেল বাজি নিক্ষেপকরে ঝলসে দেয়াসহ ২ দফা হামলার ঘটনায় মামলাচকরিয়ায় অভিমান করে বিষপানে১ সন্তানের জনকের আত্মহত্যাচকরিয়ায় অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের উপজেলা প্রশাসনের সহায়তাচকরিয়া ও পেকুয়া উপজেলা পরিষদের নির্বাচিত চেয়ারম্যান-ভাইস চেয়ারম্যানের শপথ গ্রহণচকরিয়ায় পাওনা টাকা চাওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে বিদেশগামী যুবকের বাড়িতে হামলা ও ভাংচুর, আহত ৬চকরিয়ায় স্বচ্ছ, জবাবদিহিতা মূলক ও নাগরিক বান্ধব ইউপি গঠনে চেয়ারম্যানদের অংশগ্রহণে মতবিনিময় সভা

চকরিয়ায় আনারস মার্কার ভোট ডাকাতি করতে চাইলে জনতার আদালতে চরম মূল্য দিতে হবে-সাঈদী

[post-views]

saydi, chakaria 11-3-19

পৌরসভা ও হারবাংয়ে পথসভায় জনপ্রিয় চেয়ারম্যান প্রার্থী ফজলুল করিম সাঈদী

চকরিয়া অফিস:
চকরিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জনগনের মনোনীত নাগরিক কমিটির চেয়ারম্যান প্রার্থী ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি তারুণ্যের অহংকার আলহাজ ফজলুল করিম সাঈদী গতকাল সোমবার তাঁর নির্বাচনী প্রতীক আনারস মার্কার সমর্থনে চকরিয়া পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের নামার চিরিঙ্গা, কোচপাড়া, বাঁশঘাটা, মজিদিয়া মাদরাসা পয়েন্টে ব্যাপক গনসংযোগ করেছেন। বাঁশ সমিতির অফিসের সামনে তিনি একটি পথসভায় বক্তব্য দেন। দুপুর দুইটার পর তিনি গনসংযোগের শুরুতে চকরিয়া পৌরশহরের বিভিন্ন স্থানে জনগনের সঙ্গে কুশল বিনিময় করে আনারস মার্কার সমর্থনে ভোট প্রার্থনা করেন। তিনি চকরিয়া পৌরবাস টার্মিনালে পৌঁছালে সেখানে ব্যবসায়ী থেকে শুরু করে নানা প্রেশার শ্রমজীবি মানুষ তাকে জড়িয়ে ধরে শুভেচ্ছা জানান। এরপর তিনি শ্রমজীবি মানুষকে বুকে টেনে নিয়ে তাদের খবরা-খবর নেন। এরপর তিনি বিকালে চকরিয়া উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের বিভিন্ন জনপদে আনারস মার্কার সমর্থনে ব্যাপক গনসংযোগ করেছেন। সেখানে তিনি বিকাল থেকে সন্ধ্যার আগমুর্হুত পর্যন্ত অন্তত ৮টি পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন। পথসভা ও গনসংযোগের ফাঁেক তিনি হারবাংয়ে আনারস মার্কার একটি নির্বাচনী কার্যালয় উদ্বোধন করেন। তার আগে হারবাং বাজারে শত শত মানুষের অংশগ্রহনে আনারস মার্কার সমর্থনে একটি আনন্দ মিছিলে অংশনেন।
নির্বাচনের তফসিল ঘোষনার পর থেকে চকরিয়া উপজেলার ১৮টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার এলাকার শহর থেকে গ্রামের দলমত নির্বিশেষে সর্বস্তরের উত্তাল জনতার কাছে জনপ্রিয়তার শীর্ষে এগিয়ে আছেন জনগনের মনোনীত নাগরিক কমিটির চেয়ারম্যান প্রার্থী ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ক্রীড়া সংগঠক শ্রমিকনেতা আলহাজ ফজলুল করিম সাঈদী। শান্তিপ্রিয় চকরিয়াবাসি এবারের নির্বাচনে সর্বশ্রেণীর মানুষের আপনজন হিসেবে চেয়ারম্যান প্রার্থী ফজলুল করিম সাঈদীকে গ্রহন করেছেন। ইতোমধ্যে চকরিয়া উপজেলার সর্বস্তরের জনসাধারণ কলাগাছের সমর্থনে তাকে ভালোবাসার সেই প্রতিদান তাকে দিয়েছেন। জনগনের ভালোবাসা, দোয়া নিয়ে বর্তমানে প্রতিদিন নির্বাচনী গনসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। নির্বাচনী প্রচারনাকালে সাঈদী উপজেলার প্রতিটি জনপদে যেখানে যাচ্ছেন সেখানে জনগনের ব্যাপক উপস্থিতিতে ঘটছে।
গতকাল বিকালে হারবাং স্টেশনে পথসভায় চেয়ারম্যান প্রার্থী ফজলুল করিম সাঈদী জনগনের উদ্দেশ্যে বলেন, আমি সংগ্রামী চকরিয়াবাসি আপনাদের ভালোবাসা, সমর্থন ও দোয়া নিয়ে জনগনের কল্যানে কাজ করতে ও দুষ্টের দমন করতে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়েছি। আমার ব্যক্তিগত কোন চাওয়া পাওয়া নেই। নির্বাচনে অংশনেয়ার আগে দলের জেলা ও চকরিয়া উপজেলার সিনিয়র নেতা এবং তৃনমুলের সকলস্তরের নেতাকর্মীদের অনুপ্রেরণা পেয়েছি। দল থেকে অপরজনকে প্রার্থী দেয়া হলেও আওয়ামীলীগের সর্বস্তরের নেতাকর্মী আমার সঙ্গে আছে। নেতাকর্মীরা আমাকে সাহস দিচ্ছেন। কাজেই আমি প্রিয় চকরিয়াবাসি এবং আওয়ামীলীগের সকলস্তরের নেতাকর্মীর প্রতি অনুরোধ জানাবো আপনারা আমার উপর আস্থা রাখুন, আনারস মার্কাকে বিজয়ী করুন। আমার নেতাকর্মী, সমর্থকদের ভয়ভীতি দেখানো পরিহার করুন, একটি সুন্দর নির্বাচন উপহার দিতে সবাই সহযোগিতা করুন।
তিনি বলেন, চকরিয়া উপজেলা পরিষদের নির্বাচনের মাঠে আমার প্রতি আপনাদের দোয়া ও ভালবাসা এবং সমর্থন-সহযোগিতা দেখে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী ও তাঁর অনুসারীরা জনবিচ্ছিন্ন চক্র পাগল হয়ে গেছে। তাঁরা ভোটের মাধ্যমে বিজয় দেখছেনা। সেখানে জনগনের ভোট ডাকাতির জন্য পরিকল্পনা নিচ্ছে।
জনপ্রিয় চেয়ারম্যান প্রার্থী ফজলুল করিম সাঈদী বলেন, আগামী ১৮ মার্চ চকরিয়া উপজেলা নির্বাচনে কোন ধরণের ভোট ডাকাতি কিংবা কারচুপির সুযোগ নেই। মনে রাখবেন কেউ এ ধরণের মনোবাসনা নিয়ে বসতে থাকলে বা আনারস মার্কার ভোট কারচুপি বা ডাকাতি করতে চাইলে উত্তাল জনগনের কাছে তাদেরকে কঠিন মূল্য দিতে হবে। ভোট কেন্দ্রে কোন ধরণের প্রভাব দেখালে জনগন ছাড় দেবেনা। তাই আমি প্রিয় চকরিয়াবাসিকে বলতে চাই, মহান আল্লাহ সহায় থাকলে আমার শরীরে একবিন্দু রক্ত থাকা অবস্থায় চকরিয়ায় কেউ জনগনের ভোট কারচুপি করতে পারবেনা।
প্রিয় চকরিয়াবাসি আপনারা প্রস্তুত থাকুন, জনবিচ্ছিন্ন চক্রের এই পরিকল্পনা কঠোর হাতে প্রতিরোধ করতে হবে। আপনারা সকল ধরণের ভয়ভীতিকে পদদলিত করে আগামী ১৮ মার্চ সারাদিন ভোট কেন্দ্রে থাকুন, ভোট কেন্দ্র পাহঁরা দেবেন। ইনশাল্লাহ আপনাদের ভোটে বিজয়ী হলে আপনারা দলমত নির্বিশেষে চকরিয়া উপজেলার আপামর জনসাধারণ হবেন শাসক, আমি হবো শুধুই আপনাদের সেবক। আমি আপনাদের ভালোবাসা, দোয়া ও আস্থার প্রতিদান দিতে চাই।
পথসভায় আরও বক্তব্য দেন চকরিয়া উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি শওকত হোসেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য পরিমল বড়–য়া, হারবাং আওয়ামীলীগ নেতা দারুস ছালাম মো.রফিক, হারবাং ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি জাহেদুল আলম লিটন, আওয়ামীলীগ নেতা মিফতাব উদ্দিন চৌধুরী, চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের সদস্য নুরুল আমীন টিপু, চকরিয়া পৌরসভা দুইনম্বর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি নাজেম উদ্দিন ভুট্টো, সাধারণ সম্পাদক নুরুল আবছার বাদশা, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবু হেনা মোস্তফা কামাল, ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক এম নুরুস শফি, চকরিয়া পৌর যুবলীগের সহ-সভাপতি হাসান আল বসরী, কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শেফায়েত কবির বাপ্পী, সাবেক ছাত্রনেতা আশেকুর রহমান মামুন, জেলা ছাত্রলীগের সদস্য তারেকুল ইসলাম রাহিত, পৌর যুবলীগ নেতা জামাল উদ্দিন

ক্যাপশন: চকরিয়া পৌর বাসটার্মিনাল ও হারবাং ইউনিয়নে গনসংযোগ পথসভায় জনপ্রিয় চেয়ারম্যান প্রার্থী ফজলুল করিম সাঈদী

বিভাগের সংবাদ।

নিউজ ডেস্ক, চকরিয়া২৪।