সর্বশেষ শিরোনাম
একজন সেবক হতে চাইসম্মিলিত প্রয়াসে ‘স্বপ্নের চকরিয়া’ গড়বো ইনশাল্লাহ-সাঈদীচকরিয়ায় পিকআপ মিনিট্রাক শ্রমিক ইউনিয়ন অফিসে তালা ঝুলিয়ে দেওয়ায় ক্ষুদ্ধ শ্রমিকরালক্ষ্যারচর ইউনিয়ন ও কৈয়ারবিল ১ ও ২নং ওয়ার্ড বর্ধিত সভায় সরওয়ার আলমচকরিয়ায় প্রধান শিক্ষকের অপসারণ দাবিতে শিক্ষার্থীদের স্কুলে তালা : ক্লাস বর্জনচকরিয়ায় শিশুকে ককটেল বাজি নিক্ষেপকরে ঝলসে দেয়াসহ ২ দফা হামলার ঘটনায় মামলাচকরিয়ায় অভিমান করে বিষপানে১ সন্তানের জনকের আত্মহত্যাচকরিয়ায় অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের উপজেলা প্রশাসনের সহায়তাচকরিয়া ও পেকুয়া উপজেলা পরিষদের নির্বাচিত চেয়ারম্যান-ভাইস চেয়ারম্যানের শপথ গ্রহণচকরিয়ায় পাওনা টাকা চাওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে বিদেশগামী যুবকের বাড়িতে হামলা ও ভাংচুর, আহত ৬চকরিয়ায় স্বচ্ছ, জবাবদিহিতা মূলক ও নাগরিক বান্ধব ইউপি গঠনে চেয়ারম্যানদের অংশগ্রহণে মতবিনিময় সভা

চকরিয়ায় মায়ের পরকিয়ার প্রতিবাদ করায়প্রেমিক জেঠাতো ভাইয়ের নেতৃত্বে শ্বাসরোধ করে হত্যা?

[post-views]

CHAKARIA PIC 9-4-19

চকরিয়া অফিস:
চকরিয়ায় মায়ের সাথে জেঠাতো ভাইয়ের পরকিয়ার প্রতিবাদ করায় জেঠাতো ভাইয়ের নেতৃত্বে নুরুল ইসলাম (২২) নামের এক সন্তানকে শ্বাসরোধ করে নির্মমভাবে হত্যার অভিযোগ উঠেছে? এ ঘটনা এলাকায় জানাজানি হলে তড়িগড়ি করে স্থানীয় এক মেম্বারের নির্দেশনায় লাশ দাফন করা হয়েছে। ৯এপ্রিল (মঙ্গলবার) সকালে উপজেলার ডুলাহজারা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের রিংভং ছগিরশাহকাটা সোয়াজানিয়া গ্রামে ঘটেছে এ ঘটনা। এনিয়ে এলাকার সাধারণ মানুষের মাঝে ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে।
স্থানীয়রা জানিয়েছেন, ছগিরশাহকাটা গ্রামের আবদুল জলিল থাকেন প্রবাসে। স্বামী প্রবাসে থাকার সুযোগে জড়িয়ে পড়েন ভাতিজা জসিম উদ্দিনের সাথে পরকিয়া প্রেমে। বিদেশ থেকে পাঠানো টাকা খরচ করতো পরকিয়া প্রেমিক দেবরের সাথে। পরকিয়া প্রেমিক জসিম উদ্দিন স্থানীয় ছগিরশাহকাটা দক্ষিণপাহাড় এলাকার আবুল কাসেমের পুত্র। মায়ের পরকিয়া প্রেমের বিষয়টি ধরা পড়ে যায় সন্ত্রান নুরুল ইসলামের হাতে। মা ও জেঠাতো ভাইকে একাধিক বাধা দেওয়ায় দিন দিন ক্ষিপ্ত হয়ে সন্তানের উপর। এমনকি বিদেশে থাকা পিতাও রেগে যান। সর্বশেষ দেশে ফিরেন পিতা। বিষয়টি অনেকটা নিষ্পত্তির কাছাকাছি চলে যান। কিন্তু পরকিয়া প্রেমিক জেঠাতো ভাইয়ের রাগ থেকে যায় সন্তানের (চাচাতো ভাই) উপর। এদিকে ২মাস ধরে মা অবস্থান করছেন পিতৃালয় (সন্তানের নানার বাড়ি) ঢেমুশিয়ায়। বিষয়টিকে ভিন্নভাবে প্রবাবিত করে পরকিয়া প্রেমিক ভাতিজার নেতৃত্বে ৯এপ্রিল ভোরে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেন সন্তান (চাচাতো ভাই) নুরুল ইসলাম (২২)কে। পরে তাকে চকরিয়া জমজম হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। কিন্তু স্থানীয় ১নং ওয়ার্ড মেম্বার রফিক উদ্দিনের যোগসাজসে তড়িগড়ি করে লাশ দাফনের জন্য ছগিরশাহকাটা স্কুল মাঠে আনা হলে জানাজার নামাজে আশার পথে পিতা আবদুল জলিল কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, তার ছেলেকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে?। তাকে যে কারণে হত্যা করা হয়েছে, সে ততো বড় অপরাধ করেনি বলে দাবী করেন। এনিদ বেলা ২টায় জানাজার নামাজ শেষে ছগিরশাহকাটা সোয়াজানিয়া মসজিদ কবরস্থানে শরীয়াহ মতে দাফন করা হয়েছে। কিন্তু লাশ দাফনের পূর্বমুহুর্ত পর্যন্ত নিহতের মুখে, চোখে ও নাক দিয়ে ফেনা (পানি) বের হচ্ছিল। তবে মৃত যুবকের একমাত্র ভাই আনোয়ার হোসেনের দাবী করেছেন, তার ভাই অসুস্থ ছিল। তিনি স্বাভাবিকভাবেই মৃত্যু বরণ করেছেন। অপরদিকে স্থানীয় ১নং ওয়ার্ড এমইউপি রফিক উদ্দিনের কাছ থেকে জানতে চাইলে তিনি নিহত নুরুল ইসলামকে টাইফয়েড রোগে মৃত্যু হয়েছে বলে দাবী করলেও, ইতিপূর্বে তার চিকিৎসায় নিয়োজিত চকরিয়া সদরের রয়েল ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের চিকিৎসক আতাউর রহমান জানিয়েছেন, রোগির কোন ধরণের টাইফয়েড কিংবা টিভি রোগ নিহতের ছিলনা। তবে হার্ট ও পেটের একটু সমস্যা ছিল।
চকরিয়া জমজম হাসপাতালের এমডি মো: গোলাম কবির জানিয়েছেন, মধ্যরাতে একজন যুবককে চিকিৎসার জন্য এনেছিলেন। তবে হাসপাতালে আনার পূর্বেই মারাগেছে।
চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী জানিয়েছেন, নুরুল ইসলাম নামে এক যুবকের মৃত্যুর বিষয়টি স্থানীয়দের মাধ্যমে মৌখিকভাবে শুনেছেন। পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ লিখিত অভিযোগ দিলে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে

বিভাগের সংবাদ।

নিউজ ডেস্ক, চকরিয়া২৪।