‘জঙ্গিবাদ ও সহিংসতা নিরসনে ইমাম ও ধর্মীয় নেতাদের ভূমিকা’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ

[post-views]

elma, chakaria 15-5-18,

চকরিয়ায় তরুণ আলো প্রকল্প-ইলমার আয়োজনে

এম নুরুদ্দোজা,চকরিয়া
‘‘ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সম্প্রীতির বাংলাদেশ’’ এই শ্লোগানকে প্রতিপাদ্য হিসেবে রেখে ১৫ মে,২০১৮ রোজ মঙ্গলবার তরুণ আলো প্রকল্প-ইলমা ও মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের আয়োজনে আইসিডিডিআরবি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে জঙ্গিবাদ ও সহিংসতা নিরসনে ইমাম ও ধর্মীয় নেতৃবৃন্দের ভূমিকা শীর্ষক দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত প্রশিক্ষণে ১ম পর্বে প্রশিক্ষক হিসেবে ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় ইমাম সমিতি চকরিয়া উপজেলা শাখার সভাপতি অধ্যক্ষ মাওলানা মুহাম্মদ রুহুল কুদুছ আনোয়ারী ও চকরিয়া পৌরসভা ইমাম সমিতির সভাপতি অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ কফিল উদ্দিন ফারুক। প্রশিক্ষনে চকরিয়া উপজেলার দশটি জামে মসজিদের খতিব ও ইমামগন সক্রিয় অংশগ্রহন করে জঙ্গিবাদ ও সহিংসতার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। অনুষ্ঠানের ২য় পর্বে হিন্দু , বৌদ্ধ ও খ্রীষ্টান ধর্মের প্রতিনিধিগন আলোচনায় অংশগ্রহন করে ধর্মীয় দৃষ্টিকোন থেকে শান্তি ও সম্প্রীতির অমিয় বানী উপস্থাপন করেন। পর্বটি পরিচালনা করেন সিআরসিডি’র প্রধান নির্বাহী ইকবাল বাহার ছাবেরী ও প্রজেক্ট ম্যানেজার ফোরকান মাহমুদ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইলমা’র প্রধান নির্বাহী জেসমিন সুলতানা পারু বলেন,অসাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে সমৃদ্ধ এই বাংলাদেশে জঙ্গিবাদের কোন স্থান নেই। এর বিরুদ্ধে ধর্মীয় নেতাদের কার্যকরী ভূমিকা পালন করতে হবে। তিনি প্রশিক্ষণে অংশগ্রহনকারীদের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, ধর্মীয় উপসানালয় বিশেষ করে মসজিদ,মন্দির,গীর্জা,প্যাগোডায় ধর্মীয় বাণী,ধর্মের সঠিক ব্যাখ্যা নিরন্তর প্রচার করলে তরুণরা বিপদগামী হবে না। প্রশিক্ষণ সমাপনী অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন চকরিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের প্রভাষক পদ্মলোচন বড়ুয়া,ধর্মীয় নেতা মনোরঞ্জন দেব বর্মণ,আবু হানিফ, অমল কান্তি বড়–য়া,অমিয় বড়–য়া,সিরাজ উল্লাহ,হাফেজ রশিদ আহমদ,মুহাম্মদ হাছন, আ.ফ.ম ইকবাল হাছন, মীর কাসেম, জামাল হোছাইন,আবদুল কাইয়ুম,আবুল হোছাইন, মোহাম্মদ আলী, নোমান শিবলি,তরুণ আলো কর্মকর্তা জাহিদুর রহমান।

বিভাগের সংবাদ।