চকরিয়ায় গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা, স্বামী আটক

চকরিয়া অফিস:
পারিবারিক কলহের জের ও যৌতুকের দাবিতে কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার চিরিঙ্গা ইউনিয়নের তিন নম্বর ওয়ার্ডের চারালিয়া এলাকায় মেরীনা বেগম (২৩) নামের এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা করেছে স্বামীসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন। এ ঘটনায় স্বামী মিজানুর রহমানকে আটক করেছে পুলিশ।
গতকাল রবিবার সকালে পেটানোর পর জ্ঞান হারালে ওই বধূকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক পরীক্ষার পর বধূকে মৃত ঘোষণা করে। খবর পেয়ে চকরিয়া থানার এসআই তুষ্টলাল বিশ্বাসের নেতৃত্বে একদল পুলিশ গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি শেষে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেন।
নিহত গৃহবধূ মেরীনা বেগম চকরিয়া উপজেলার চিরিঙ্গা ইউনিয়নের তিন নম্বর ওয়ার্ডের বুড়িপুকুরস্থ চারালিয়া পাড়ার টমটম চালক মিজানুর রহমানের স্ত্রী। তাদের সংসারে বর্তমানে সাতমাসের এক পুত্র সন্তান রয়েছে।
জানা গেছে, গৃহবধূ মেরীনা উপজেলার সাহারবিল ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের মাইজঘোনা উত্তর পাড়ার মনোর আলমের কন্যা। চিরিঙ্গা ইউনিয়নের চারালিয়া পাড়ার হাছন আলীর ছেলে টমটম চালক মিজানুর রহমানের সঙ্গে দুইবছর আগে বিয়ে হয় মেরীনার।
মেরীনার বাবা মনোর আলমের অভিযোগ, বিয়ের পর থেকে স্বামী মিজান, শ্বশুড় হাছন আলীসহ পরিবার সদস্যরা যৌতুকের দাবিতে প্রায়শই মারধর করতো মেয়েকে। এনিয়ে বেশ কয়েকবার সালিশও হয়েছে। গতকাল রবিবার সকালেও মেয়েকে নির্যাতন করে তারা।
থানার ওসি মো. হাবিবুর রহমান বলেন, ‘এ ঘটনায় স্বামী মিজানুর রহমানকে আটক করা হয়েছে। মেয়ের অভিভাবকের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেলে মামলা নেওয়া হবে।’

বিভাগের সংবাদ।

নিউজ ডেস্ক, চকরিয়া২৪।